1. [email protected] : admi :
  2. [email protected] : admin admin : admin admin
  3. [email protected] : atayur :
  4. [email protected] : Author :
  5. [email protected] : Toufiq Hassan : Toufiq Hassan
  6. [email protected] : News Reporter :
লাল, সবুজ ও হলুদ এলাকায় যা করা যাবে, যা যাবে না
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৫৯ অপরাহ্ন

লাল, সবুজ ও হলুদ এলাকায় যা করা যাবে, যা যাবে না

Desk Report
  • Update Time : সোমবার, ৮ জুন, ২০২০
  • ১৬০ Time View

করোনা ভাই’রাস সংক্রমণ রোধে তিনটি ভাগে ভাগ করা করা হয়েছে। আর তিনটি চিহ্নিত হল- লাল, হলুদ ও সবুজ এলাকা। এ সব পরিচালনার জন্য গাইডলাইন ঠিক করা হয়েছে। করো’নার পরিস্থিতির উপর এই চিহ্ন গু'লো এলাকা ভিক্তিক দেয়া হবে। যে এলাকায় আ’ক্রা'ন্তের সংখ্যা বেশি। সে সব এলাকায় এ চিহ্নিত ব্যবহার করে পদ'ক্ষেপ নেয়া হবে। কেন্দ্রীয় একটি কমিটির অধীনে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলের নেতৃত্বে পু’লিশ, স্বাস্থ্য অধিদ'প্তর ও সিটি করপোরেশনের প্রতিনিধিসহ স্থানীয় মানুষকে সম্পৃক্ত করে কমিটি গঠনের মাধ্যমে লকডাউনসহ অন্যান্য বি'ষয় বাস্তবায়িত হবে।

লাল এলাকা

মানুষদের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের জন্য হোম ডেলিভা’রির ব্যবস্থা থাকবে। শপিং মল বন্ধ থাকবে। গণপরিবহন চলাচল করবে না, এমনকি এই এলাকায় স্টপেজও থাকবে না। তবে কেবল রাতে মালবাহী যান চলাচল করতে পারবে।

এলাকার ম’সজিদে সাধারণের প্রবেশ নিষে'ধ থাকবে। মানুষের অবাধ যাতায়াত বন্ধ করার জন্য ভৌগোলিক বাস্তবতা অনুসরণ করে সড়ক ও গলির মুখ বন্ধ করা হবে। এছাড়া মহল্লার ভেতর আড্ডাও বন্ধ থাকবে। এলাকায় কাঁচাবাজারের জন্য নির্ধারিত ভ্যান সার্ভিসের ব্যবস্থা করা হবে।

আর লকডাউন এলাকায় বস্তি থাকলে দুই স'প্তাহের খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিত করার কথা রয়েছে গাইডলাইনে। এ এলাকার করো’নায় আ’ক্রা'ন্ত ব্যক্তিদের হোম কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করতে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা কঠোর ভূমিকা পালন করবে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর টহলও অব্যা'হত থাকবে। লাল জোনে অবস্থিত অফিস–আ’দালত নিয়ন্ত্রিতভাবে চলা বা বন্ধ রাখার পক্ষে সিটি করপোরেশন। এ বি'ষয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে নির্দেশনা আসতে হবে বলে মনে করে সিটি করপোরেশন।

হলুদ এলাকা

হলুদ এলাকায় শপিং মল বন্ধ থাকবে; তবে মুদি দোকান খোলা থাকবে। অর্ধেক যাত্রী নিয়ে গণপরিবহন চলতে পারবে। একজন করে যাত্রী নিয়ে রিকশা ও অটোরিকশা চলতে পারবে। এই এলাকায় মালবাহী যানও চলবে। ম’সজিদে দূরত্ব বজায় রেখে যাওয়া যাব'ে। মানুষের অবাধ যাতায়াত বন্ধ করার জন্য ভৌগোলিক বাস্তবতা অনুসরণ করে সড়ক ও গলির মুখ বন্ধ করা হবে। এছাড়া মহল্লার ভেতর আড্ডাও বন্ধ থাকবে। এলাকায় কাঁচাবাজারের জন্য নির্ধারিত ভ্যান সার্ভিসের ব্যবস্থা করা হবে।

আর লকডাউন এলাকায় বস্তি থাকলে দুই স'প্তাহের খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিত করার কথা রয়েছে গাইডলাইনে। হলুদ জোনে অবস্থিত অফিস–আ’দালত নিয়ন্ত্রিতভাবে চলা বা বন্ধ রাখার পক্ষে সিটি করপোরেশন। এ বি'ষয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে নির্দেশনা আসতে হবে বলে মনে করে সিটি করপোরেশন। এ এলাকার করো’নায় আ’ক্রা'ন্ত ব্যক্তিদের হোম কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করতে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা কঠোর ভূমিকা পালন করবে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর টহলও অব্যা'হত থাকবে।

সবুজ এলাকা

সবুজ এলাকায় যানবাহন চলতে পারবে। ম’সজিদে দূরত্ব বজায় রেখে যাওয়া যাব'ে।

চিকিৎসার প্রয়োজন হলে

লকডাউন এলাকার কোনো ব্যক্তিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য এলাকার বাইরে আসার প্রয়োজন হলে দায়িত্বপ্রা'প্ত পু’লিশ সদস্যদের অনুমতি নিয়ে বাইরে আসা যাব'ে।

কেউ মা’রা গেলে

লকডাউন এলাকায় কেউ মা’রা গেলে ‘আল মা’রকাজুল ইস’লাম, আঞ্জুমান মুফিদুল ইস’লাম বা এই ধরনের কাজে নিয়োজিত সংস্থার মাধ্যমে দা'ফন বা সৎকার করা হবে। জানা গেছে, লাল, হলুদ ও সবুজ এলাকায় ভাগ করে আজ সোমবার রাত অথবা কাল ম'ঙ্গলবার থেকে ঢাকায় শুরু 'হতে পারে এলাকাভিত্তিক ভিন্নমাত্রার লকডাউন। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মিডিয়া সেলের প্রধান ও স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের অ’তিরিক্ত সচিব হাবিবুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, লাল, হলুদ ও সবুজ—এই তিন ধরনের এলাকা চিহ্নিতকরণের কাজটি বিশেষজ্ঞরা করছেন। সেটি হওয়ার পরই সরকারে সি'দ্ধান্তে তা কার্যকর হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
News Bulletin © All rights reserved 2021
Develper By ITSadik.Xyz