1. [email protected] : admi :
  2. [email protected] : admin admin : admin admin
  3. [email protected] : atayur :
  4. [email protected] : Toufiq Hassan : Toufiq Hassan
  5. [email protected] : News Reporter :
সুফিয়া কামালের লেখনী আজও পাঠককে আলোড়িত করে : প্রধানমন্ত্রী
বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০১:৫৩ অপরাহ্ন

সুফিয়া কামালের লেখনী আজও পাঠককে আলোড়িত করে : প্রধানমন্ত্রী

Desk Report
  • Update Time : শনিবার, ২০ জুন, ২০২০
  • ১৩৭ Time View

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘দেশ, প্রকৃতি, গণতন্ত্র, সমাজ-সংস্কার, নারীমুক্তি এবং শিশুতোষ রচনাসহ বিভিন্ন বি'ষয়ে বেগম সুফিয়া কামালের লেখনী আজও পাঠককে আলোড়িত ও অনুপ্রাণিত করে। কবি বেগম সুফিয়া কামালের সৃজনশীলতা ছিল অবিস্মর'ণীয়।’

২০ জুন কবি বেগম সুফিয়া কামালের ১০৯তম জন্ম'দিন উপলক্ষে শুক্রবার (১৯ জুন) দেয়া এক বাণীতে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘নারী জাগরণের অগ্রদূত বেগম রোকেয়ার চিন্তাধা'রা কবি সুফিয়া কামালের জীবনে সুদূরপ্রসারী প্রভাব ফেলে। তার দাবির পরিপ্রেক্ষিতেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ছাত্রীনিবাসের নাম ‘রোকেয়া হল’ রাখা হয়। শিশু সংগঠন কচিকাঁচার মেলা’র তিনি প্রতিষ্ঠাতা।’

তিনি বলেন, ‘৫২-এর ভাষা আন্দোলন, ৬৯-এর গণঅভ্যুত্থান, ৭১-এর অসহযোগ আন্দোলন ও মুক্তিযু'দ্ধ এবং স্বাধীন বাংলাদেশে বিভিন্ন গণতান্ত্রিক সংগ্রামসহ শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক আন্দোলনে তার প্রত্যক্ষ উপস্থিতি তাকে জনগণের ‘জননী সাহসিকা’ উপাধিতে অ'ভিষিক্ত করেছে। তার স্মর'ণে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের জন্য ‘বেগম সুফিয়া কামাল হল’ নির্মাণ করে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা ব'ঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ৭৫-এর ১৫ই আগস্টে নি'র্মমভাবে হ'ত্যা করে যখন এ দেশের ইতিহাস বিকৃতির পালা শুরু হয়, তখনও তার সোচ্চার ভূমিকা বাংলাদেশে মুক্তিযু'দ্ধের পক্ষের গণতান্ত্রিক শক্তিকে নতুন প্রেরণা জুগিয়েছিল।’

প্রধানমন্ত্রী গণতান্ত্রিক এবং নারীমুক্তি আন্দোলনের অন্যতম পথিকৃৎ কবি বেগম সুফিয়া কামালের জন্ম'দিন উপলক্ষে তার স্মৃ'তির প্রতি গভীর শ্র'দ্ধা জানান এবং কবির আ'ত্মা'র মাগফিরাত কামনা করেন।

কবি বেগম সুফিয়া কামাল ১৯১১ সালের ২০ জুন বরিশালে জন্মগ্রহণ করেন এবং ১৯৯৯ সালের ২০ নভেম্বর ঢাকায় মৃ'ত্যুবরণ করেন উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘তিনি এক দিকে ছিলেন আবহমান বাঙালি নারীর প্রতিকৃতি, অন্যদিকে বাংলার প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে ছিল তার আপসহীন এবং দৃ'প্ত পদচারণা।’

বাণীতে প্রধানমন্ত্রী সুফিয়া কামালের ‘বহুদিন পরে মনে পড়ে আজি, পল্লী-মায়ের কোল’, ‘ঝাউশাখে যেথা বনলতা বাঁধি, হরষে খেয়েছি দোল’, ‘কুলের কাঁটার আঘা'ত সহিয়া, কাঁচা-পাকা কুল খেয়ে’, ‘অমৃ'তের স্বাদ যেন লভিয়াছে, গাঁয়ের দুলালী মেয়ে’ কবিতার অংশ বিশেষ উল্লেখ করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
News Bulletin © All rights reserved 2021
Develper By ITSadik.Xyz