1. admin1@newsbulletin.info : admi :
  2. mohamamdin95585@gmail.com : atayur :
  3. sawontheboss4@gmail.com : Toufiq Hassan : Toufiq Hassan
  4. zilanie01@gmail.com : Rumie :
ফেনীতে পু'লিশের সঙ্গে যু'বকের হা'তাহা'তির ঘটনায় সেই পু'লিশ ক্লো'জড
রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০৩:২২ পূর্বাহ্ন

ফেনীতে পু’লিশের সঙ্গে যু’বকের হা’তাহা’তির ঘটনায় সেই পু’লিশ ক্লো’জড

Desk Report
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল, ২০২১
  • ১৯২ Time View

ফেনীতে পু'লিশ সদস্যদের সাথে শহিদুল ইসলাম নামে এক যুবকের হাতাহাতি ও ধস্তাধস্তির ঘটনায় পু'লিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) যশমন্ত মজুম'দারকে ক্লোজড করা হয়েছে। সোমবার (১৯ এপ্রিল) রাতে অতিরিক্ত পু'লিশ সুপার মাইনুল ইসলাম বি'ষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। মাইনুল ইসলাম জানান, পু'লিশের সাথে ধস্তাধস্তিতে জড়ানো যুবক মানসিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। তার সাথে পু'লিশ সদস্যরা আরও দায়িত্বশীল আচরণ করতে পারতেন। পু'লিশ সুপার খোন্দকার নুরুন্নবী স্বাক্ষরিত ওই আদেশে এসআই যশোমন্ত মজুম'দারকে ফেনী মডেল থানা থেকে প্রত্যাহার (ক্লোজড) করে পু'লিশ লাইন্সে সংযুক্ত করা হয়েছে।

ফেনীর পু'লিশ সুপার নুরুনবী জানান, এই ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অ'ভিযোগে একজন উপ-পরিদর্শক, একজন সহকারী উপ-পরিদর্শক ও একজন কনস্টেবলকে ক্লোজড করা হয়েছে। তাদের বিরু'দ্ধে ত'দন্ত সা'পেক্ষে বিভাগীও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এর আগে সোমবার (১৯ এপ্রিল) ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে দেখা যায়, ফেনীর মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে রিকশায় বসে থাকা এক যাত্রীর স'ঙ্গে কথা বলছেন একাধিক পু'লিশ সদস্য। চলমান লকডাউনে মাস্ক পরা ও বিনা প্রয়োজনে ঘরের বাইরে চলাচল করতে বাধা প্রদান করছিলেন তারা। এ সময় ওই যাত্রীর স'ঙ্গে কথা কা'টাকাটি হয় এবং তাকে রিকশা থেকে নামতে বলেন পু'লিশ সদস্যরা। এক পর্যায়ে রিকশায় থাকা ওই ব্যক্তি উচ্চস্বরে দায়িত্বরত পু'লিশদের উদ্দেশে বলে ওঠেন, ‘এই দেশে পু'লিশের অনেক ক্ষমতা, না!

এ সময় এক পু'লিশ সদস্য তাকে জোর করে রিকশা থেকে নামাতে চাইলে তাদের মধ্যে ধস্তাধস্তির শুরু হয়। রিকশা থেকে নামিয়ে ফেলা ওই ব্যক্তি বলতে থাকেন, তুই অন্য রিকশা ছারছিস, আমা'রটা ধরলি ক্যান? একাধারে তিনি পু'লিশদের গালাগালি করতে থাকেন।

ওই ব্যক্তি আরও আ'ক্রমণাত্মক হয়ে উঠলে পু'লিশ সদস্যরা তাকে আঘা'ত করে। এ সময় ওই ব্যক্তিও পু'লিশদের পাল্টা আঘা'ত করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ায় এক পর্যায়ে একাধিক পু'লিশ সদস্য তাকে যাপটে ধরে এবং হ্যান্ডকাফ পরানোর চেষ্টা করেন।

ঘটনাস্থলে উচ্ছুক জনতার ভিড় জমতে শুরু করলে ওই ব্যক্তি সবার উদ্দেশে বলেন, মসজিদে কোরআন পড়তে যাচ্ছিলাম, বলছি আমাকে ছেড়ে দেন। এ সময় ওই হ্যান্ডকাফ পরতে অস্বীকৃতি জানায় এবং গালাগালিসহ এলোপাথাড়ি হাত-পা ছুড়তে থাকে। একই সময় তিনি উপস্থিত জনতার উদ্দেশে চিৎকার করে ভিডিও করতে বলে।

পরে একপর্যায়ে ৪/৫ জন পু'লিশ সদস্য তাকে হ্যান্ডকাফ পরানোর জন্য জোরপূর্বক মাটিতে ফেলে চাপ প্রয়োগ করে। তারা চিৎকার করে বলতে থাকেন, হ্যান্ডকাফ লাগা, ধর। এ সময় উপস্থিত জনতার তোপের মুখে তারা আবার ওই ব্যক্তিকে ধরে উঠান এবং হ্যান্ডকাফ পরান। এ সময় ওই ব্যক্তি এটা আওয়ামী লীগের দেশ বলে চিৎকার করতে থাকে। পরে তাকে পু'লিশ হেফাজতে নেওয়া হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
News Bulletin © All rights reserved 2021
Develper By ITSadik.Xyz