1. [email protected] : admi :
  2. [email protected] : admin admin : admin admin
  3. [email protected] : atayur :
  4. [email protected] : Author :
  5. [email protected] : Toufiq Hassan : Toufiq Hassan
  6. [email protected] : News Reporter :
করোনামুক্ত হলেন ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:৩৪ অপরাহ্ন

করোনামুক্ত হলেন ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম

Desk Report
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৫ জুন, ২০২০
  • ২০৭ Time View

করো'নামুক্ত হলেন ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম
একের পর এক আলোচিত ভ্রাম্যমাণ আ'দালত পরিচালনাকারী র‌্যাব' সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম করো'নামুক্ত হয়েছেন। বুধবার তিনি নিজেই বি'ষয়টি নিশ্চিত করেন।

সারোয়ার আলম বলেন, ‘আলহা'ম'দুলিল্লাহ। আল্লাহর অশেষ রহমত ও আপনাদের সকলের দোয়ার বদৌলতে কোভিড-১৯ থেকে মুক্তি পেলাম। কৃতজ্ঞতা আপনাদের সকলের প্রতি।’

এর আগে গত ৭ জুন সস্ত্রীক করো'নায় আ'ক্রা'ন্ত হয়েছিলেন সারোয়ার আলম।

উল্লেখ্য, দেশে করো'না সংক্রমণের পর থেকে সারোয়ার আলম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত, সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত, নকল মাস্ক, গ্লাভসের বিরু'দ্ধে অ'ভিযান পরিচালনা করেন। এছাড়া রমজানে বেশ কয়েকটি ভেজালবিরোধী অ'ভিযানও পরিচালনা করেন।

ভ্রাম্যমাণ আ'দালত পরিচালনার কারণে নিয়মিত আলোচনায় আসেন ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম। তবে র‍্যাব'ের আলোচিত অ'ভিযানের পাশাপাশি একবার হাইকোর্টের তলবের কারণে আলোচনায় আসেন এ ম্যাজিস্ট্রেট।

তার ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতা কেড়ে নিতে দায়ের করা রিটে আবারও আলোচিত হন তিনি। ভ্রাম্যমাণ আ'দালতে এক ব্যক্তিকে দেয়া দ'ণ্ডাদেশের চারমাস পার হলেও আদেশের প্রত্যয়িত অনুলিপি না পাওয়ার প্রেক্ষাপটে করা এক রিটে ১ ডিসেম্বর তাকে হাইকোর্টে তলব করা হয়।

ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম প্রথম আলোচনায় আসেন ২০১৪ সালে। ফার্মগেটে ওভার ব্রিজ বাদ দিয়ে যারা সড়কে রাস্তা পারাপার হচ্ছিলেন তাদের নামমাত্র জরিমানা করে সচেতন করেছিলেন তিনি।

তার আলোচিত অ'ভিযানের মধ্যে অন্যতম ছিল ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে ফকিরাপুল ক্যাসিনোতে অ'ভিযান। গত ১৮ সেপ্টেম্বর ফকিরাপুলের ইয়ংমেনস ক্লাব, ওয়ান্ডারার্স ক্লাব, মুক্তিযো'দ্ধা সংসদে অ'ভিযান চালান তিনি। এ সময় ১৪২ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেন। উ'দ্ধার করা হয় ক্যাসিনো থেকে উপার্জিত অবৈ'ধ ২৪ লাখ ২৯ হাজার টাকা।

গত বছরের ২১ সেপ্টেম্বর নিকেতনে যুবলীগ নেতা জি কে শামীমের অফিসে অ'ভিযানে যায় র‍্যাব'। সেখানেও ছিলেন সারোয়ার আলম। অ'ভিযানে তার কার্যালয়ে তল্লা'শি করে অবৈ'ধভাবে উপার্জিত নগদ এক কোটি ৮০ লাখ, ২০০ কোটি টাকার এফডিআর, বিদেশি ডলার, ম'দ ও অ'স্ত্র উ'দ্ধার করেন তিনি।

ঢাকায় যখন কিশোর অ'পরাধী ও গ্যাংয়ের দ্বারা হ'ত্যাকাণ্ড, চুরি-ছিন'তাই বেড়ে যায় তখন তাদের শনাক্তে অ'ভিযান চালান সারোয়ার আলম। ৩১ জুলাই গ্যাং, ছিন'তাই, মা'দকসহ নানাবিধ অ'পরাধে রাজধানীর শ্যামলী, শিশুমেলা, কলেজ গেট এলাকায় অ'ভিযান চালিয়ে ২৯ কিশোরকে আট'ক করে ছয় মাসের জন্য কিশোর সংশোধনী কেন্দ্রে পাঠান তিনি।

গেল বছরের জুলাইয়ে সারাদেশ যখন ডে'ঙ্গু' জ্বরে আ'ক্রা'ন্ত তখন হাসপাতালগু'লো ডে'ঙ্গু' ও সিবিসি পরীক্ষায় মর'্জিমতো ফি আ'দায় শুরু হয়। সংবেদনশীল এ বি'ষয়ে অ'ভিযান শুরু করেন সারোয়ার। ৩১ জুলাই ডে'ঙ্গু' পরীক্ষায় সরকার নির্ধারিত ফির চেয়ে বেশি নেয়া এবং টেস্ট না করে প্যাথলজিক্যল রিপোর্ট দেয়ায় পল্টন এবং ফকিরাপুল এলাকায় চারটি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে পাঁচজনকে জেল, ১৮ লাখ টাকা জরিমানা করে দুই প্রতিষ্ঠান সিলগালা করেন।

আরও সংবাদ

৬১ লাখ টাকা ফিরিয়ে দেওয়া সেই অটোরিকশাচালক সজিব পুরস্কার ‘অটোরিকশা’

৬১ লাখ টাকা ফিরিয়ে দেওয়া সেই অটোরিকশাচালক সজিব পুরস্কার ‘অটোরিকশা’
চাঁদপুর: চাঁদপুরে ৬১ লাখ টাকা ফিরিয়ে দেওয়া সেই অটোরিকশাচালক সজিবকে পুরস্কৃত করেছে বিকাশ। বুধবার দুপুরে চাঁদপুর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পু'লিশ সুপারের উপস্থিতিতে তাকে একটি অটোরিকশা প্রদান করে বিকাশ কর্তৃপক্ষ। এ সময় অটোরিকশার চাবি সজিবের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

এ সময় সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পু'লিশ সুপার জাহেদ পারভেজ চৌধুরী, চাঁদপুরে বিকাশের পরিবেশক আলমগীর আলম জুয়েল, সজিবের বাবা দিনমজুর দেলোয়ার সর্দারসহ গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে চাঁদপুর শহরে পুরানবাজারের দিনমজুর দেলোয়ার সর্দারের ছেলে সজিব এমন একটি অটোরিকশা পেয়ে এখন বেশ খুশি। এতোদিন অন্যের থেকে ভাড়ায় নিয়ে অটোরিকশা চালাতো। এখন তা নিজের হওয়ায় ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান বিকাশ কর্তৃপক্ষকে।

বিকাশের চাঁদপুর পরিবেশক আলমগীর আলম জুয়েল জানান, চালক সজিব সততার যেই পরিচয় দিয়েছে। তার পুরস্কারস্বরূপ তাকে স্বচ্ছলভাবে জীবিকা নির্বাহ করতে একটি অটোরিকশা প্রদান করেন তিনি।

চাঁদপুর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পু'লিশ সুপার জাহেদ পারভেজ চৌধুরী জানান, এমন একজন সজিবের মতো প্রতিটি মানুষ সততার মধ্য দিয়ে দেশকে এগিয়ে নেবেন। এমন প্রত্যাশা করে সজিবকে পুরস্কৃত করায় বিকাশকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

প্রস'ঙ্গত, গত রবিবার চাঁদপুর ইউসিবিএল ব্যাংক থেকে ৬১ লাখ টাকা তুলে কর্মস্থলে ফেরার পথে বিকাশকর্মী মাসুদ ভুল করে তা অটোরিকশায় ফেলে যান। ওই দিনই ৭ ঘণ্টা পর চালক সজিব পু'লিশের মাধ্যমে সেই টাকা প্রকৃত মালিক বিকাশ পরিবেশককে ফিরিয়ে দেয়। এই নিয়ে তাৎক্ষণিক জে'লা পু'লিশ সুপার মো. মাহবুবুর রহমান তার ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে চালক সজিবের সততার জন্য নগদ ৫ হাজার টাকা প্রদান করেন। একই স'ঙ্গে চাঁদপুরে বিকাশ পরিবেশক আলমগীর আলম জুয়েল একটি অটোরিক্শা দিয়ে তার প্রতিশ্রুতি দিয়ে পূরণ করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
News Bulletin © All rights reserved 2021
Develper By ITSadik.Xyz