1. [email protected] : admi :
  2. [email protected] : admin admin : admin admin
  3. [email protected] : atayur :
  4. [email protected] : Author :
  5. [email protected] : Toufiq Hassan : Toufiq Hassan
  6. [email protected] : News Reporter :
‘কেবল বাংলাদেশেই আমরা কোনো সমর্থন পাই না’
বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:১৬ অপরাহ্ন

‘কেবল বাংলাদেশেই আমরা কোনো সমর্থন পাই না’

Desk Report
  • Update Time : রবিবার, ২৮ জুন, ২০২০
  • ১৭৮ Time View

বিশ্বের অন্যসব দেশের মাঠে সমর'্থকের উল্লাস-উদ্দীপনার দেখা পেলেও বাংলাদেশেইআমর'া কোনো সমর'্থন পাই না বলে আ'ক্ষেপ করেছেন ভারতের ওপেনার রোহিত শর্মা।শুক্রবার (১৫ মে) রাতে তামিম ইকবালের স'ঙ্গে ফেসবুক লাইভে যুক্ত হয়ে এ আ'ক্ষেপের কথা জানান তিনি।রোহিত বলেন, ‘গ্যালারিতে সমর'্থক ছাড়া খেলার স'ঙ্গে ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দল অভ্যাস্ত নয়।কিন্তু আমর'া যখন বাংলাদেশের মাঠে খেলতে নামি, অবিশ্বা'স্য ব্যাপার ঘটে যায়। কারণ বাংলাদেশই একমাত্র জায়গা, যেখানে আমর'া কোনো সমর'্থনই পাই না।’

বাংলাদেশ ২০০৭ বিশ্বকাপে ভারতকে হারায়। এরপর ২০১২ এশিয়া কাপে শচীনেরশততম সেঞ্চুরির ম্যাচে জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ। তখন থেকেই ভারতের বিপক্ষেবাংলাদেশের ম্যাচ দর্শকপ্রিয়তা পেতে শুরু করে। ২০১৫ বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে ভারতের কাছে হারে বাংলাদেশ।কিন্তু ওই ম্যাচের কিছু বিতর্কিত সি'দ্ধান্ত দু’দলের সমর'্থকদের মধ্যে আ-গু'-নে উত্তাপ ছড়াই।এরপর চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমিফাইনাল, নিদাহাস ট্রফি, এশিয়া কাপের ফাইনালে ওই উত্তাপ বাড়ে।বাংলাদেশে খেলতে আসলে তাই দর্শকদের দুয়ো শুনতে হয় ভারতের।

পায় না কোন সমর'্থন। রোহিত তাই বলেন, ‘যেখানেই আমর'া খেলতে যাই না কেন, সমর'্থন পাই। ভক্তরা মাঠে আসেন। কেবল বাংলাদেশে আমা'দের কোনো সমর'্থন জোটে না।’তখন সশব্দ হাসিতে তামিম বলেন, ‘মাঠের পুরো দর্শক আমা'দের সমর'্থন দেন। রোহিতবাংলাদেশের সমর'্থকদের টুপি খোলা সম্মান জানান। তার মতে বাংলাদেশের দর্শকঅসাধারণ। খেলাটা দারুণ উপভোগ করেন তিনি। ভারতের ওয়ানডে দলের এই সহ-অধিনায়ক জানান,

বাংলাদেশ দলও এখন পরিবর্তিত এক দল। তারা যেভাবে খেলছে ভবি'ষ্যতে বলা যায় যা কিছু করে খেলতে পারে এই দল।বিপিএল প্রস'ঙ্গে রোহিত বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষ ক্রিকে'টের ব্যাপারে অনেক আবেগপ্রবণ। এমনটা বাংলাদেশ ছাড়া আর কোথাও দেখিনি সত্যি।আমা'র মনে হয়, এই উৎসাহটা যদি দর্শকদের মাঝে ছড়িয়ে দেয়া যায় তাহলে আরও ভালো হবে।’‘(বিপিএলে) দুই-তিনজন খেলোয়াড় যদি কয়েকবছর নির্দিষ্ট একটি ফ্রাঞ্চাইজির হয়ে খেলে তাহলে তাদের সমর'্থকগোষ্ঠিও বৃ'দ্ধি পাবে।

দর্শকরা একটা দলকে সেভাবেই সা'পোর্ট করতে পারবে। ধরো, তুমিসহ (তামিম) আরও কয়েকজন ঢাকার হয়ে অনেক বছর খেললে। আমা'র মনে হয় বিসিবির এমন কিছু করা উচিৎ।’এমনটা না হলে দর্শকদের আগ্রহ কমে যাওয়াই স্বাভাবিক বলে মনে করেন আইপিএলেরইতিহাসের সফলতম অধিনায়ক রোহিত শর্মা। তার ভাষ্য, ‘কয়েকজন মূল খেলোয়াড়কেএক দলে অনেক বছর রাখা উচিৎ, নাহলে দর্শকদের উৎসাহ হারিয়ে যাব'ে। ধরো, তারাতোমা'র জন্য এক দলকে সমর'্থন দিচ্ছে,কিন্তু এরপর শুনলো যে তুমি অন্য দলে চলে গেছ, তখন তাদের আবার আরেক দলকে সমর'্থন দিতে হবে।’‘আমা'দের মনে রাখা উচিৎ দর্শকরা খেলার আগ্রহ আরও বাড়িয়ে দেয়। সেটা শুধু ক্রিকেট না, যেকোন খেলাই 'হতে পারে।আমা'দের কাছেও ভক্তদের গু'রুত্ব অনেক বেশি। তুমি তাদের খেয়াল না রাখলে, তারাও তোমা'র খেয়াল করবে না।’

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
News Bulletin © All rights reserved 2021
Develper By ITSadik.Xyz