Breaking News

এবার ঈদে ১২ হাজার কোটি টাকার পোশাক বিক্রির প্রত্যাশা

ব্যবসায়ীরা বছরজুড়ে অ'পেক্ষায় থাকেন ঈদের।
দেশে ঈদকেন্দ্রিক ব্যবসা-বাণিজ্য বরাবরই ভালো হলেও গত দুই বছরে চারটি ঈদের চিত্র ছিল ভিন্ন। মহা'মা'রি করো'নাভাইরাসের কারণে কঠোর বিধিনিষে'ধে ঈদের আগে মা'র্কেট খুলতেই পারেননি ব্যবসায়ীরা।

অল্প সময়ের জন্য মা'র্কেট খুললেও মানুষের অর্থনৈতিক অবস্থা ভালো না থাকায় বেচাকেনা ছিল খুবই কম। ফলে গু'নতে হয়েছে বড় লোকসান।

করো'নাভাইরাস পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক হয়ে আসায় এবার ঈদুল ফিতর ঘিরে ভালো ব্যবসার প্রত্যাশা করছেন ব্যবসায়ীরা।

করো'নাকালের ক্ষ'তি পুষিয়ে নিতে আকাশচুম্বী প্রত্যাশা নিয়ে বিনিয়োগ করেছেন ব্যবসায়। বড় লাভের স্বপ্ন দেখছেন রাজধানীর ব্যবসায়ীরা।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, এবার করো'নাভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতি অনেকটা স্বাভাবিক। নেই বিধিনিষে'ধও।
ফলে ঈদকেন্দ্রিক ব্যবসা-বাণিজ্য জমজমাট হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

সবার একটাই লক্ষ্য—করো'নাকালে ঈদে যে লোকসান হয়েছে, তা কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করা। তবে এখনো ঈদের বাজার জমেনি বলে জানিয়েছেন রাজধানীর ব্যবসায়ীরা। স্বাভাবিক সময়ের মতো চলছে বেচাকেনা।

তবে হঠাৎ বাজারে সব ধরনের পোশাকের দাম কিছুটা বেড়েছে।
খুচরা বিক্রেতাদের বাড়তি দামে পণ্য কিনতে হচ্ছে। ফলে খুচরা বাজারেও এর প্রভাব পড়বে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *