1. [email protected] : admi :
  2. [email protected] : admin admin : admin admin
  3. [email protected] : atayur :
  4. [email protected] : Toufiq Hassan : Toufiq Hassan
  5. [email protected] : News Reporter :
চীনে নতুন ভাই'রাস শনাক্ত, বিশ্বজুড়ে ফের মহামা'রির শ'ঙ্কা
সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১১:৪৩ পূর্বাহ্ন

চীনে নতুন ভাই’রাস শনাক্ত, বিশ্বজুড়ে ফের মহামা’রির শ’ঙ্কা

Desk Report
  • Update Time : মঙ্গলবার, ৩০ জুন, ২০২০
  • ১০৪ Time View

মহা'মা’রি আকারে ছড়িয়ে পড়ার সক্ষমতা রয়েছে চীনে ফ্লু ভাই’রাসের এমন একটি নতুন স্ট্রেইন শনাক্ত করেছেন বিজ্ঞানীরা।

খুব সম্প্রতি এর উৎপত্তি হয়েছে এবং এর বাহক প্রা’ণী হচ্ছে শূকর। এটি মানুষকেও সংক্রমিত করতে পারে বলে ওই বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন। খবর ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির।

গবেষকরা উদ্বেগ প্রকাশ করে বলছেন যে, এই ফ্লু ভাই’রাসটি ক্রমশই রূপান্তরিত হয়ে সহ’জেই এক ব্যক্তি থেকে অ’পর ব্যক্তিতে ছড়িয়ে পড়তে পারে এবং এটিরও করো’নার মতো একটি বৈশ্বিক মহা'মা’রির রুপ নেওয়ার সক্ষমতা রয়েছে। তাই বি'ষয়টি নিয়ে সতর্ক করে দিয়েছেন তারা।

বিজ্ঞানীরা আরও জানিয়েছেন, ‌‘মানুষের মধ্যে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার মতো সব ধরনের চিহ্ন ভাই’রাসটির মধ্যে দেখা যাচ্ছে। বি'ষয়টি নিয়ে আমা'দের নিবিড় পর্যবেক্ষণ প্রয়োজন। কেননা নতুন ফ্লু স্ট্রেইন হওয়ায় এর বি’রু'দ্ধে মানুষের খুব সামান্য কিংবা একেবারে কোনো ধরনের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা না থাকার সম্ভাবনাই বেশি।’

বিশ্বে এখন চীন থেকেই প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়া নভেল করো’নাভাই’রাসের মহা'মা’রি চলছে। ভাই’রাসটি এক কোটিরও বেশি মানুষের দে'হে সংক্রমিত হয়েছে; কেড়ে নিয়েছে ৫ লাখ মানুষের প্রা’ণ। এই সময়েও বিশেষজ্ঞরা যে শীর্ষ রোগের ঝুঁ’কির ওপর নজর রাখছেন তার মধ্যে ইনফ্লুয়েঞ্জার একটি ক্ষ'তিকর নতুন স্ট্রেইন রয়েছে।

সবশেষ ২০০৯ সালে বিশ্ব ফ্লু মহা'মা’রির কবলে পড়েছিল। সোয়াইন ফ্লু নামে এর প্রাদুর্ভাব শুরু হয়েছিল মেক্সিকোতে। অবশ্য প্রাথমিক শ’ঙ্কার চেয়ে তুলনামূলক এটি ছিল কম মা’রাত্মক। এর বি’রু'দ্ধে বয়স্ক ব্যক্তিদের কিছুটা রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা ছিল; সম্ভবত আগের ফ্লু ভাই’রাসের স'ঙ্গে মিল থাকায় এমনটা হয়েছিল।

বিজ্ঞানীরা চীনে ফ্লুর যে নতুন স্ট্রেইনটি শনাক্ত করেছেন তা ২০০৯ সালের সোয়াইন ফ্লু ভাই’রাসের মতো হলেও এর মধ্যে নতুন কিছু পরিবর্তন দেখা যাচ্ছে। শ’ঙ্কা’টা বেশি এ কারণেই। বি'ষয়টি নিয়ে গবেষণারত অধ্যাপক কিন-চো চ্যাং বলেন, এখন পর্যন্ত এটা মা’রাত্মক ঝুঁ’কি তৈরি করেনি তবে এর ওপর নজর রাখতে হবে।

গবেষকরা ফ্লুর নতুন এই ভাই’রাসটিকে জি৪ইএএইচ১এন১ নাম দিয়েছেন। ভাই’রাসটি কোষের মধ্যে বৃ'দ্ধি ও বহুগু'ণে বাড়তে পারে; যা মানুষের বায়ুগ্রহণের পথগু'লোর স'ঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ। তারা সম্প্রতি এমন ব্যক্তির মধ্যে এর সংক্রমণের প্রমাণ খুঁজে পেয়েছেন যারা চীনের কসাইখানা কিংবা শূকর প্রক্রিয়াজাত শিল্পের স'ঙ্গে জ’ড়িত।

বর্তমানে ফ্লুর যে ভ্যাকসিন/টিকা রয়েছে তা এই ভাই’রাসটির সংক্রমণ রোধ করতে পারছে না। যু’ক্তরাজ্যের নটিংহ্যাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক কিন চো চ্যাং বিবিসিকে বলেন, ‘এই মুহুর্তে আম’রা করো’না নিয়ে বিপর্যস্ত। তবে আমা'দের অবশ্যই সম্ভাব্য বিপজ্জনক নতুন ভাই’রাসগু'লোর প্রতি দৃষ্টি হারাতে দেওয়া ঠিক হবে না।’

যদিও তিনি বলছেন, ‘নতুন এই ভাই’রাস হয়তো শিগগিরই আমা'দের জন্য তেমন বিপজ্জনক সমস্যা হয়ে উঠবে না, তবুও আমা'দের এটাকে অবহেলা করা উচিত নয়।’

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
News Bulletin © All rights reserved 2021
Develper By ITSadik.Xyz