1. [email protected] : admi :
  2. [email protected] : admin admin : admin admin
  3. [email protected] : atayur :
  4. [email protected] : Author :
  5. [email protected] : Toufiq Hassan : Toufiq Hassan
  6. [email protected] : News Reporter :
ভাড়া দিতে দেরি, ছাত্রদের সার্টিফিকেট ময়লার গাড়িতে দিলেন বাড়িওয়ালা
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:২২ অপরাহ্ন

ভাড়া দিতে দেরি, ছাত্রদের সার্টিফিকেট ময়লার গাড়িতে দিলেন বাড়িওয়ালা

Desk Report
  • Update Time : শুক্রবার, ৩ জুলাই, ২০২০
  • ২৭৩ Time View

একজন শিক্ষার্থীর সারাজীবনের অর্জন তার সার্টিফিকেট। সেই সার্টিফিকেট ও মূল্যবান জিনিসপত্রসহ সবকিছু সিটি করপোরেশনের গাড়িতে তুলে দিয়েছে বাড়িওয়ালা। যখন জানতে পারলাম স'ঙ্গে স'ঙ্গে ঢাকায় চলে আসি। এসে দেখি জিনিসপত্র কিছুই নেই; বাড়িওয়ালা সব ফেলে দিয়েছে।’

সার্টিফিকেট আর মূল্যবান সব জিনিসপত্র হারিয়ে এভাবেই অশ্রুসিক্ত নয়নে বর্ণনা দিচ্ছিলেন ঢাকা কলেজের স্নাতক শেষবর্ষের শিক্ষার্থী মোহা'ম্মা'দ সজীব। দীর্ঘ চারবছর ধরে রাজধানীর কলাবাগান এলাকার ৪/এ, ওয়েস্টার্ন স্ট্রিটের রুবী ভবনের নিচতলায় থাকতেন তিনি।

শুধু সজীব নয়, মেসে থাকার প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র, ল্যাপটপসহ শিক্ষাজীবনে অর্জিত মূল্যবান সব সার্টিফিকেট হারিয়েছেন একই ফ্ল্যাটে থাকা আরও আট' শিক্ষার্থী। আর অ'ভিযুক্ত বাড়িওয়ালার নাম মুজিবুল হক ওরফে কাঞ্চন।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীদের অ'ভিযোগ, কোনো ধরনের নোটিশ না দিয়েই প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আর জিনিসপত্রসহ ফ্ল্যাটে ব্যবহৃত সবকিছু বাসা থেকে বের করে তুলে দেয়া হয়েছে সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়িতে। আর কাজটি করেছেন বাড়িওয়ালা মুজিবুল হক ওরফে কাঞ্চন। খবর পেয়ে শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ এলাকা থেকে ফ্ল্যাটে চলে এলেও ঢুকতে পারেননি তারা। পাননি প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রও।

ভুক্তভোগী সজীব জাগো নিউজকে বলেন, ‘মা'র্চের ৫ তারিখ পর্যন্ত ভাড়া পরিশোধ করে আমর'া বাড়ি চলে যাই। এরপর বাড়িওয়ালার বিদ্যুৎ, গ্যাস ও পানি বিল বাবদ আরও ১৫ হাজার টাকা মোবাইলে পাঠাই। বাকি টাকা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললে ঢাকায় এসে পরিশোধ করার কথা ছিল। টাকা পাঠানোর পরেই বাড়িওয়ালা আর ফোন রিসিভ করেননি। পরে জানতে পারি, আমা'দের মালামাল সব ফেলে দেয়া হয়েছে। ঢাকায় ফিরে কিছুই আর অবশিষ্ট পাইনি। আমর'া আমা'দের সার্টিফিকেটসহ জিনিসপত্রগু'লো ফেরত চাই, আমর'া এর বিচার চাই।’

বাড়িওয়ালার এমন অমানবিক আচরণে ভুক্তভোগীর তালিকায় রয়েছেন উচ্চমাধ্যমিকে চার পরীক্ষার্থীও। প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের স'ঙ্গে এই শিক্ষার্থীদের খোয়া গেছে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহনের মূল রেজিস্ট্রেশন কার্ড। এখন পরীক্ষায় অংশ নেয়া নিয়ে চরম দুশ্চিন্তায় রয়েছেন তারা।

এ বি'ষয়ে কথা বলতে বাড়ির মালিক মুজিবুল হক ওরফে কাঞ্চনকে একাধিকবার ফোন করলেও তার মুঠোফোন নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়।

এই ঘটনায় মা'মলা হয়েছে জানিয়ে নিউমা'র্কেট জোনের সিনিয়র সহকারী পু'লিশ কমিশনার আবুল হাসান জাগো নিউজকে বলেন, ‘ঘটনার বি'ষয়ে মা'মলা হয়েছে। আমর'া অ'ভিযুক্ত বাড়ির মালিককে ধরতে তার বাসায় অ'ভিযান চালিয়েছি। আ'সামিকে পাওয়া যায়নি। তবে চেষ্টা চলছে। আমর'া আ'সামিকে ধরে ফেলব।’

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
News Bulletin © All rights reserved 2021
Develper By ITSadik.Xyz