1. [email protected] : admi :
  2. [email protected] : admin admin : admin admin
  3. [email protected] : atayur :
  4. [email protected] : Toufiq Hassan : Toufiq Hassan
  5. [email protected] : News Reporter :
হজে যাওয়ার জমানো টাকা গরিবদের দান করলেন বৃদ্ধা
সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৫:১৭ অপরাহ্ন

হজে যাওয়ার জমানো টাকা গরিবদের দান করলেন বৃদ্ধা

Desk Report
  • Update Time : রবিবার, ১৭ মে, ২০২০
  • ২৪৭ Time View

শ্বজুড়ে মহা'মা'রীর আকার ধারণ করেছে প্রাণঘা'তী করো'না ভাইরাস। এবার করো'না ভাইরাসের স'ঙ্গে মোকাবেলার জন্য দেশজুড়ে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। এর ফলে মক্কায় হজ করার সমস্ত পরিকল্পনা ভেস্তে যায় এক মুসলিম বৃ'দ্ধার। হজ করতে যাব'েন বলে দীর্ঘদিন ধরে এই বৃ'দ্ধা পাঁচ লক্ষ টাকা জমিয়েছিলেন। কিন্তু, করো'নাভাইরাস (Corona Virus)-র সংক্রমণ ও লকডাউনের ফলে মক্কায় আর যাওয়ার হলো না। আর তখনই সেই জমানো টাকা মানবসেবায় দান করার পরিকল্পনা নেন জম্মু ও কাশ্মীরের এই বৃ'দ্ধা।

কিন্তু কোনো সরকারি সংস্থা বা মা'দরাসাকে নয় নিজের কষ্টার্জিত সেই টাকা তিনি তুলে দিলেন আরএসএসের শাখা সংগঠন সেবা ভারতীকে। বি'ষয়টি প্রকাশ্যে আসার পরেই তাঁকে কুর্নিশ জানাচ্ছেন সবাই। আর খালিদা বেগম নামে ৮৭ বছরের ওই বৃ'দ্ধা বলছেন, ‘দীর্ঘদিন ধরেই সেবা ভারতীর কাজ দেখেছি। তাই গরিব কাশ্মীরিদের সাহায্য করার জন্য ওদের হাতেই টাকা তুলে দিয়েছি।’

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, খালিদ বেগমের বাবা পীর মহম্ম'দ খান এক সময়ে জনসং'ঘের সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন। ফলে খুব ছোট থেকেই রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সং'ঘের সেবামূলক কাজকর্ম নিজের চোখে দেখে আসছেন তিনি। অনেক সময় নিজেও অনেক সেবামূলক কাজের স'ঙ্গে যুক্ত থেকেছেন।

বর্তমানে তাঁর ছেলে ও প্রাক্তন আইপিএস কর্মকর্তা ফারুক খান জম্মু ও কাশ্মীরের উপ-রাজ্যপালের বিশেষ পরামর'্শদাতা হিসেবেও কাজ করছেন। তাই বন্যা বা অন্য দুর্যোগের সময় রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সং'ঘের বিভিন্ন শাখা সংগঠন কীভাবে ধ'র্মমত নির্বিশেষে অসহায় ও গরিব মানুষদের পাশে দাঁড়ায় তা খুব ভালোভাবেই জানেন তিনি। ফলে হজে যাওয়ার জন্য জমানো টাকা সেবা ভারতীকে দান করার আগে একটুও ভাবেননি তিনি।

খালিদা বেগমের এই মহৎ অবদানের কথা জানিয়ে তাঁর ভূয়সী প্রশংসা করেন আরএসএসের মিডিয়া শাখা ইন্দ্রপ্রস্থ বিশ্ব সংবাদ কেন্দ্র (IVSK)-র প্রধান অরুণ আনন্দ। এ প্রস'ঙ্গে তিনি বলেন, ‘জম্মু ও কাশ্মীরে সেবা ভারতীর সমাজসেবামূলক কাজ থেকে অ'ভিভূ'ত হয়েছেন খালিদা বেগম। তাই দেশজুড়ে করো'নাভাইরাসের কারণে যখন লকডাউন চলছে তখন কাশ্মীরের গরিব মানুষের জন্য তিনি পাঁচ লাখ টাকা দান করেছেন। আমর'া তাঁর ভরসা ও ইচ্ছার সম্পূর্ণ মর'্যাদা রাখব।’

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
News Bulletin © All rights reserved 2021
Develper By ITSadik.Xyz